আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০১৭   ||   ||   মোট পঠিত ৩৬ বার

যশোর-বেনাপোল সড়কের সংস্কারে নিম্নমানের ইট ও বালুর ব্যবহার

তরিকুল ইসলাম,ঝিকরগাছা (যশোর) ॥ যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের ধুলাবালির ওপর চলছে সংস্কার কাজ। রাস্তার কাজে বারবার নামমাত্র সংস্কারের কারণে এই সড়কের করুণ চিত্র দীর্ঘদিন ধরে সেই আগের অবস্থায় থেকে যাচ্ছে। দুর্ভোগের শিকার হাজারো ভুক্তভোগী মানুষের মাঝে তীব্র ক্ষোভ লক্ষ্য করা গেছে। সোমবার সকালে সড়ক ও জনপদ বিভাগকে তাদের নিজস্ব একটি পরিবহনে (মিনিট্রাক) স্টোন ও কিছু পিচ এনে তা দিয়ে ধুলাবালির ওপর দায়সারা সংস্কার কাজ করতে দেখা গেছে। ধুলাবালির ওপর নিম্নমানের ইট ও বালু দিয়ে সংস্কার কাজ করায় যাত্রী পরিবহনসহ ট্রাক চালকদের অনেক প্রশ্নের সম্মুখীন হতে দেখা গেছে সংস্কার কাজে নিয়েজিত শ্রমিকদের।
সম্প্রতি যশোর-বেনাপোল সড়কের ঝিকরগাছা পৌর সদরে একেবারে নাজুক অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে শহরের সড়ক সেতুর দু প্রান্তসহ বিভিন্ন স্থানে রাস্তায় বড় বড় গর্তে পরিণত হয়। ব্রিজের দু ধারে হাইওয়ে রোডের ওপর কয়েক শ ফুট করে ইটের সোলিংয়ের কারণে মানুষের দুর্ভোগ অনেকাংশে বেড়েছে। প্রতিনিয়ত কোনো না কোনো গাড়ি বিকল হয়ে পড়ে থাকছে ব্রিজের ওপর। ফলে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হওয়ার কারণে বেনাপোল থেকে ছেড়ে আসা পণ্যবাহী ট্রাক, ঢাকা-কলকাতার যাত্রীবাহী বাস দীর্ঘ সময় ধরে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজের ওপর দাঁড়িয়ে থাকছে। অতিরিক্ত চাপে ঝুকিপূর্ণ ব্িরজটি যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছে ঝিকরগাছাবাসী। পথচারীসহ সাধারণ মানুষ তীব্র ভোগান্তিতে রয়েছে। সরেজমিনে সোমবার যশোর-বেনাপোল সড়কের লাউজানী থেকে বেনেয়ালী বাজার পর্যন্ত গিয়ে দেখা গেছে রাস্তার বেহাল দশা। ট্রাক চালকেরা বলছেন, রাস্তা খারাপ হওয়ায় যশোর-থেকে বেনাপোল যেতে বর্তমানে ৩/৪ গুণ সময় বেশি লাগছে। এ ছাড়া পারবাজার এলাকায় রাস্তার দু ধারের মাটি না থাকায় যেন ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। উপজেলা শহর থেকে পার্শ্ব সংযোগ সড়কগুলোর বেহাল দশা লক্ষ্য করা গেছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে যশোর-বেনাপোল সড়কসহ ঝিকরগাছার সকল রাস্তা সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। এদিকে গত ২৭ অক্টোবর সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও যশোর-২ আসনের এমপি অ্যাড. মনিরুল ইসলাম মনির, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম, সড়ক বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী আসান ইবনে আলম, এডিশনাল চিফ ইঞ্জিনিয়র আবুল কাশেম, ঝিনাইদাহের নির্বাহী প্রকৌশলী এসএম মোয়াজ্জেম হোসেন, যশোরের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর আলম, ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলামসহ সরকারি বিভিন্ন দফতরের প্রধানগণসহ উর্ধতন কর্তৃপক্ষ যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক ও ঝিকরগাছা কপোতাক্ষ নদের ওপর সড়কসেতু পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন কালে ঝিকরগাছা শহরে যশোর-বেনাপোল বেহাল মহাসড়ক ও ঝুঁকিপূর্ণ সড়কসেতুর সংস্কারের জোর দাবি জানান স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম মুকুল, সাধারণ সম্পাদক মুছা মাহমুদ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর কবিরসহ স্থানীয়রা। তাদের দাবির মুখে আগামী তিন মাসের মধ্যে যশোর-বেনাপোল সড়কসহ সড়কসেতুর কাজ শুরুর আশ্বাস দিয়েছিলেন পরিদর্শক দল।

তথ্যসূত্রঃ Daily Loksomaj