আপডেট: অক্টোবর ৮, ২০১৭   ||   ||   মোট পঠিত ৫৪ বার

নড়াইল জেলা প্রশাসকের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

আব্দুল কাদের,নড়াইল : নড়াইল জেলা প্রশাসকের ব্যতিক্রমী উদ্যোগনড়াইলের জেলা প্রশাসক এমদাদুল হক চৌধুরী যোগদানের পর ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করে প্রশংসিত হয়েছেন। তিনি সাধারণ মানুষের বিভিন্ন সমস্যা শুনে তা সমাধানের লক্ষ্যে সপ্তাহের প্রতি বুধবার গণশুনানি চালুসহ গরীব-অসহায় মানুষকে সরকারি ও ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নিয়মিত সাহায্য সহযোগিতা করে চলেছেন।
জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, গত ২৬ মে নড়াইলের জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদান করেন এমদাদুল হক চৌধুরী। যোগদানের চার মাসের মাথায় জেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছে বন্ধুবৎসল প্রশাসক হিসেবে ইতোমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন তিনি। তার ন্যায় পরায়ণতা সবাইকে করেছে মুগ্ধ। সততা ও দায়িত্ব পালনে তিনি একনিষ্ঠ। শিক্ষার মান উন্নয়নসহ জেলার সার্বিক উন্নয়নে তিনি নিরলসভাবে কাজ করছেন। গত ২৫ সেপ্টেম্বর বৃক্ষরোপণের অংশ হিসেবে লোহাগড়া উপজেলার আমাদা আদর্শ কলেজে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত হন। কলেজের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত কলেজের অবকাঠামোর উন্নয়নসহ বিভিন্ন দাবি দাওয়া তুলে ধরে। জেলা প্রশাসক শিক্ষার্থীদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন। সেদিনের প্রতিশ্রুতি পূরণে ৪ অক্টোবর বিকেলে জেলা প্রশাসক আমাদা কলেজের অবকাঠামো উন্নয়নে কলেজ অধ্যক্ষ আল-ফয়সাল খানের হাতে এক লাখ টাকা তুলে দেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কামরুল আরিফ, অতিরিক্তি জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) ইয়ারুল ইসলাম, সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রতন কুমার হালদার, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, নড়াইল প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি সুলতান মাহমুদ।
এছাড়া ক্লিন নড়াইল, গ্রীণ নড়াইল গড়ার লক্ষ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে ৬ লাখ ২০ হাজার বৃক্ষ রোপণের কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ২ লাখ ৩০ হাজার গাছের চারা, লোহাগড়া উপজেলায় ২ লাখ ১০ হাজার এবং কালিয়া উপজেলায় ১ লাখ ৮০ হাজার গাছের চারা রোপণ করা হয়েছে।

তথ্যসূত্রঃ Daily gramerkagoj