আপডেট: জুলাই ১৭, ২০১৭   ||   ||   মোট পঠিত ৭১ বার

যবিপ্রবি উপাচার্যের সঙ্গে জেলা আ’লীগের সভাপতি মিলনের সৌজন্য সাক্ষাৎ

যবিপ্রবি উপাচার্যের সঙ্গে জেলা আ’লীগের সভাপতি মিলনের সৌজন্য সাক্ষাৎযশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল। রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন।
উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন তাকে স্বাগত জানান। সাক্ষাতের সময় তিনি উপাচার্যের সঙ্গে পারস্পারিক কুশলাদি বিনিময় করেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে সবার সহযোগিতা কামনা করে অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকবে জয় বাংলা ছাত্রলীগ। এখানে কোনো জিন্দাবাদ ছাত্রলীগ থাকবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে হলে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। এখানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী ছাত্র সংগঠন থাকবে। কিন্তু তারা যেন শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট না করতে পারে, এ ব্যাপারে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।
যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেনকে ধন্যবাদ জানিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন বলেন, বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ বিদ্যমান। আপনার আগমনের পরে সবকিছু ঠিকভাবে চলছে। আমরা শান্তিবোধ করছি।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সঙ্গে এ সময় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর জহুরুল ইসলাম, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সহধর্মিনী নাসরিন সুলতানা খুশি, শহর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ্ব ফিরোজ খান, আওয়ামী লীগ নেতা মো. আব্দুল ওয়াদুদ, যুবলীগ নেতা মাহামুদুল হাসান, হুমায়ুন কবির তুহিন, ছাত্রলীগ নেতা কায়েস আহম্মেদ রিমু, মেহেদী হাসান, আল-আমীন হোসেন প্রমুখ।

তথ্যসূত্রঃ Daily gramerkagoj