আপডেট: মে ২, ২০১৭   ||   ||   মোট পঠিত ১১২ বার

গরম পানিতে আম শোধন ও পাকানো

কৃষিবিদ ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম : গরম পানিতে পরিপক্ব কাঁচা আম শোধন করা হলে আমের গায়ের রঙ সুন্দর ও মসৃণ থাকে। এছাড়াও আমের গায়ে লেগে থাকা রোগ জীবাণু ও পোকামুক্ত হব। ভোক্তাদের নিকট অশোধিত আমের তুলনায় এ শোধিত আমের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াব এবং বাজারমূল্য বেশি হবে।

মৌসুমে পরিপক্ব পুষ্ট কাঁচা আম গাছ থেকে সাবধানে পেড়ে তা আগে পরিষ্কার পানিতে ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর কোনো পাত্রে ৫২-৫৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রায় পানি (পানিতে হাত ডুবালে সহনীয়মাত্রায়) গরম হলে তাতে পানতিে পরষ্কিার করা আমগুলো ঠিক ৫ মিনিট রেখে এক সাথে উঠিয়ে নিতে হবে। আমের গা থেকে পানি ঝরা শেষে শুকিয়ে গেলে স্বাভাবিক নিয়মে আমগুলো প্যাকিং করে বাজারজাত করতে হবে।

এ প্রকিয়ায় আমের জাতের প্রকারভেদে সাধারণ আমের (অশোধিত) চেয়ে গরম পানিতে শোধন করা আমের আয়ু (সেলফ লাইফ) ১০-১৫ দিন বেড়ে যাবে। এ ব্যবস্থায় আর রাসায়নিক ব্যবহার প্রয়োজন হবে না, জন সাধারণ বিশুদ্ধ আমের স্বাদ পাবেন। দূর-দূরান্তে দেশে বিদেশে এভাবে গরম পানিতে শোধিত আম বাজারজাত করা যাবে এবং ভেজালহীন মুনাফা সম্ভব হবে।

তথ্যসূত্রঃ online