আপডেট: এপ্রিল ১০, ২০১৭   ||   ||   মোট পঠিত ৭৭ বার

 ভূমিহীনদের কাছ থেকে উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ

কেশবপুর (যশোর) : ভূমিহীনদের কাছ থেকে উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ যশোর জেলা পরিষদের অফিস সহকারী আসলাম হোসেনের বিরুদ্ধে অসহায় ভূমিহীন ২৩ পরিবারের কাছ থেকে ২ লক্ষাধিক টাকা উৎকোচ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীরা বৃহস্পতিবার জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছে । অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, কেশবপুরের গৌরিঘোনা ইউনিয়নের সন্যাসগাছা গ্রামের হযরত আলী সরদার, আব্দুল গফুর মোড়ল, মোস্তাফা, আয়শা বেগম, রুপালী বেগম, আব্দুল আজিজ শেখ, আব্দুল হালিম শেখ, মহাসিন শেখ, রেজাউল ইসলাম, শরিফা বেগম, আউব আলী শেখ, সুজায়েত আলী শেখ, ময়েজ উদ্দীন, নাজিম উদ্দীন গাইন, আকবার শেখ, রেশমা বেগম, শহিদুল ইসলাম, ইসলাম শেখ, হায়দার আলী শেখ, কাদের ফকির, বিল্লাল হোসেন, সামসুর মোড়ল অসহায় অশিক্ষিত ভূমিহীন ব্যক্তি। তারা ওই ইউনিয়নের যতিম-কাশেম রোডের ভদ্রনদীর উত্তর পার্শ্বে ১৪০ নং সন্ন্যাসগাছা মৌজায় জেলা পরিষদের পরিত্যাক্ত জমিতে নিয়ম অনুযায়ী ইজারার মাধ্যমে কুড়ে ঘর, বেধে বসবাস করে আসছে। ২০১৭ সালের নভেম্বর পর্যন্ত তাদের নিকট বকেয়ার সমুদয় অর্থ যশোর জেলা পরিষদের অফিস সহকারী আসলাম হোসেনের নিকট পরিশোধ করেছে। কিন্তু সুচতুর আসলাম হোসেন তাদের কোন রশিদ প্রদান করেনি। উপরন্ত উচ্ছেদের হুমকী দিয়ে তাদের কাছে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। তাছাড়া আসলাম হোসেন উক্ত খাস জমির উপর থেকে গাছ বিক্রয় করেও নিজে আত্মসাত করেছে। স¤প্রতি তিনি ঐ জমিতে বসবাসরত ব্যক্তিদের নিকট থেকে উৎকোচ স্বরূপ ৫ থেকে ১৫ হাজার টাকা গ্রহণ করে কোন রশিদ ছাড়াই ইজারা বন্দোবস্ত দিচ্ছে। ভুক্তভুগীরা এ ধরণের কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উদ্ধর্তন কর্র্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এব্যাপারে জেলা পরিষদের ১৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য সোহরাব হোসেন জানান, ভুমিহীন ২৩ পরিবারের স্বাক্ষরিত জেলা পরিষদের অফিস সহকারী এমডি আসলাম হোসেনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান দ্রুত তদন্তপূর্বক যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

তথ্যসূত্রঃ Daily gramerkagoj