আপডেট: এপ্রিল ২৪, ২০১৪   ||   ||   মোট পঠিত ৪৫৪ বার

বেনাপোলে এলাচের বাণিজ্যিক চাষ

এলাচের বাণিজ্যিক চাষ শুরু হয়েছে বেনাপোলে। এলাচ চাষ করে সফল হয়েছেন বেনাপোল পা বাড়ী এলাকার কৃষক শাহজাহান আলী। উর্বর জমিতে মসলা চাষ করে ফলন হয়েছে বাম্পার। আর এ দেখে কয়েকশ’ কৃষক এলাচ চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। কৃষক শাহজাহান আলীর ক্ষেত থেকে নিয়েছেন মসলা গাছের চারা।

বগুড়া মসলা গবেষণা ইনস্টিটিউশনের পরিচালক ভাগ্যরানী সাহা ও প্রধান কৃষি বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. কলিম উদ্দিন, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আশিক উদ্দিনসহ ৪ সদস্যের কৃষি বিভাগের একটি টিম সম্প্রতি এলাচ উৎপাদনকারী এলাকা পরিদর্শন করেছেন। বেনাপোল পা বাড়ী এলাকায় ৩৩ শতক জমিতে দুই জাতের এলাচ চাষ করেছেন কৃষক শাহজাহান আলী। বিশ্বে ১৭ জাতের এলাচের মধ্যে সবুজ কালো, নিল সাদা ও বেগুনীসহ ১৩ জাতের এলাচ আমদানি করা হয় বলে জানান ভাগ্যরানী সাহা। বেনাপোলে শাহজাহানের এলাচ ক্ষেতে গাছের গোড়ায় ফল ধরেছে ব্যাপক। বেলে দোঁয়াশ মাটিতে এলাচ চাষে ফলন হয়েছে ভাল। কৃষি কর্মকর্তারা বেনাপোলের মাটিতে মসলা চাষকে বাংলার আরও একটি উজ্বল সম্ভাবনা হিসেবে দেখছেন। বাংলাদেশে এই প্রথম বাণিজ্যিকভাবে এলাচ চাষ হয়েছে বলে উলে¬খ করেছেন কৃষি কর্মকর্তারা। বগুড়া মসলা ইনস্টিটিউশনের পরিচালক ভাগ্যরানী সাহা বলেন, কৃষক শাহজাহান আলীর এলাচ ক্ষেতে ফল ও ফুল এসেছে। ভাল ফলনও হবে। বিভিন্ন প্রজাতির মধ্যে এ জাতটির ঘ্রাণ ভাল। বর্তমানে বাজারে এলাচ বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা। কৃষক শাহজাহান আলী জানান, ৩১ শতাংশ জমিতে ৫শ’ চারা বপন করি। প্রতি চারা থেকে গাছের গোড়ায় প্রত্যেক ঝাড়ে ৩০/৬০টি গাছ হয়েছে। প্রতিটি গাছে ফলন হয়েছে ভাল।

তথ্যসূত্রঃ