আপডেট: ফেব্রুয়ারী ১১, ২০১৪   ||   ||   মোট পঠিত ২১৬ বার

ভালোবাসা-মাতৃভাষা দিবস॥ ৭ কোটি টাকার ফুল বিক্রির টার্গেট গদখালীতে

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস (ভ্যালেন্টাইন্স ডে) ও ২১ ফেব্রয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলে ফুল সরবরাহে ব্যাপক তোড়জোড় চলছে ফুলের রাজধানী হিসেবে পরিচিত যশোর ঝিকরগাছার গদখালীতে। গত কয়েক মাস ধরে নতুন নতুন প্রজাতির ফুল গাছ রোপন ও পরিচর্যার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে চলেছেন এখানকার চাষিরা। ইতিমধ্যে ভালোবাসা দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ফুলের বাজার ধরতে সব রকমের প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা। এবছর ফুল উৎপাদন, চাহিদা ও দামÑসবই বেশি হওয়ায় প্রতিবারের মতো এবারও কয়েক কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে বলে আশা করছেন ফুলচাষিরা।

বাংলা, ইংরেজী নববর্ষ ও ভ্যালেন্টাইন ডে উপলে সারাদেশে যে পরিমান ফুল বেচা-কেনা হয় তার অন্তত ৭০ শতাংশই যশোর থেকে সরববাহ করা হয়। সপ্তাহের প্রতিদিন খুব সকালে যশোরের ঝিকরগাছার গদখালীতে ফুলের পাইকারী বাজার বসে। এই বাজার থেকে গড়ে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকার বিভিন্ন জাতের ফুল রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যায়। শীত মৌসুমে এবং বিশেষ বিশেষ দিবস উপলে এখান থেকে বেচাকেনা হয় কোটি টাকার উপরে। তবে গত কয়েক মাসে দেশের রাজনৈতিক অস্থীতিশীলতার কারণে বছরের শুরুতে এবারের ইংরেজী নববর্ষে এ অঞ্চলের ফুলচাষিরা ১০ শতাংশ ফুলও সরবরাহ করতে পারেননি। যেকারণে তাদের মারাত্মক অর্থনৈতিক তির শিকার হতে হয়েছে । তাই গত ছয়-সাত মাসের তি কাটিয়ে ও ার আশা তাদের। এজন্য ওই দিবস দুটিকে টার্গেটে নিয়ে ফুল পরিচর্যায় ব্যস্ত তারা।

গদখালীর ফুল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম জানান, দেশের রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে গত ৫ মাসে তাদের ৩ থেকে ৪ কোটি টাকার তি হয়েছে। হরতাল অবরোধের কারণে পরিবহন না থাকায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পাইকাররা আসতে না পারায় বিক্রিযোগ্য ফুল েেতই নষ্ট হয়ে যায়। যেকারণে কৃষক ও ব্যবসায়ীরা মারাত্মক তির সম্মুখিন হন। তিনি জানান, তি পুষিয়ে উ তে কৃষকরা প্রাণান্ত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি আরও জানান, এবার ভালোবাসা ও মাতৃভাষা দিবসে অন্তত ৭ কোটি টাকার ফুল বিক্রির টার্গেট নেয়া হয়েছে। প্রতিদিন গদখালী ফুল বাজারে দূর-দূরান্ত থেকে পাইকার, খুচরা ব্যবসায়ীরা ছুটে আসছেন ফুল সংগ্রহ করতে। এবছর ফুল উৎপাদন, চাহিদা ও দামÑবেশি হওয়ায় ভালোবাসা দিবসে ফুল বিক্রি গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণ ছাড়িয়ে যাবে বলে ব্যবসায়ীরা আশা করছেন। তবে এবারের ভালোবাসা দিবসে ইউরোপের অপূর্ব ফুল জারবেরা স্পেশাল গিফট হিসেবে গণ্য হচ্ছে সকলের কাছে। চাহিদা বেশি থাকায় অতি মূল্যবান এই ফুলটি বিক্রি করে চাষিরা অধিক লাভবান হবেন বলে আশা করছেন। শুধু ভ্যালেন্টাইন্স ডে নয়, বিজয় দিবস, ভাষা দিবস, স্বাধীনতা দিবস, বিবাহ, পূজা-পার্বনে গদখালীর চাষিরা ফুল বিক্রি করে বছরে কোটি কোটি টাকা আয় করে আসছেন। আগামী ২১ ফেব্র“য়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসেও ফুল বিক্রি করে বিপুল লাভবান হবেন বলে বলে আশা করছেন তারা।

তথ্যসূত্রঃ