আপডেট: জুলাই ১৭, ২০১৬   ||   ||   মোট পঠিত ৩৭২৯ বার

ও বন্ধু আমার-

ও বন্ধু আমার---বন্ধুত্বের সঠিক সংগা লেখা কারো পক্ষেই সম্ভব নয়। ভাবের আতিশয্যে ভাষা যেমন মূল্যহীন তেমনি বন্ধুত্বের সংগা খোঁজাও অর্থহীন। জীবনের প্রয়োজনে বন্ধুত্ব হয়। তবে শৈশবের বন্ধুত্ব যদি জীবনের শেষ শয়ান পর্যন্ত থাকে তবে তা ভাষায় অনুদিত করার ক্ষমতা কারো নেই। তেমিন দু‘বন্ধু সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলাম এবং সাবেক এমপি প্রয়াত আলী রেজা রাজু। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা তরিকুল ইসলাম এসেছিলেন তাঁর দলের পক্ষে আলী রেজা রাজুর কফিনে ফুল দিতে। ফুল দিলেনও। কিন্তু খাটিয়ার পাশ থেকে তাঁকে সরানো গেল না। ঘটে গেল অন্যরকম ঘটনা।

এক সময় বিএনপি করলেও সে দল আলী রেজা রাজু ত্যাগ করেছিলেন। তিনি ছিলেন ভোটের মাঠের চির প্রতিদ্বন্দ্বী। এমনকি আঞ্চলিক রাজনীতিতেও অবস্থান ছিল বিপরীতমুখী। এ সব কিছু ছাপিয়ে জেগে উঠলো কৈশর আর যৌবনের বন্ধুত্ব। খাটিয়া আঁকড়ে ধরে ডুকরে কেঁদে উঠলেন তিনি। এ কান্না যেন থামবার নয়। হাউমাউ করে শিশুদের মত কাঁদলেন। যে কান্না উপস্থিত সকলের চোখে ছড়িয়ে পড়লো। কি আওয়ামী লীগ, কি বিএনপি, সবার চোখে জল। তাঁর চোখের জল মনে করিয়ে দিল-হারিয়ে গেল অনেক কিছু সকাল দুপুর রাত, হারিয়ে গেল পাশাপাশি আঁকড়ে ধরা হাত।

তথ্যসূত্রঃ Gramerkagoj